Sunday, 24 September 2017
ইভেন্ট হেডলাইন
×

Warning

Error loading component: com_languages, Component not found.

নির্বাচন কমিশন গঠন প্রসঙ্গে রাষ্ট্রপতির সাথে জাসদের বৈঠক অনুষ্ঠিত

0
0
0
s2smodern
powered by social2s
 
 
ঢাকা,  সোমবার ২৬ ডিসেম্বর ২০১৬ বিকাল চারটায় বঙ্গভবনে নির্বাচন কমিশন গঠন প্রসঙ্গে রাষ্ট্রপতি মোঃ আবদুল হামিদের সাথে বৈঠকে সাতটি প্রস্তাব দিয়েছেন জাতীয় সমাজতান্ত্রিক দল-জাসদ সভাপতি ও তথ্যমন্ত্রী হাসানুল হক ইনু ।
 
সংবিধানের চার মূলনীতিতে আস্থাশীল ব্যক্তিদের নিয়ে নির্বাচন কমিশন গঠন, সংবিধানের ১১৮ অনুচ্ছেদ অনুযায়ী নির্বাচন কমিশন গঠনের জন্য সুনির্দিষ্ট আইন প্রণয়ন, আইন প্রণয়নের পূর্বে প্রধান বিচারপতি মনোনীত আপীল বিভাগের একজন বিচারপতি ও হাইকোর্ট বিভাগের একজন বিচারপতি এবং বাংলাদেশের সাংবিধানিক পদে অধিষ্ঠিত এমন ব্যক্তিদের সমন্বয়ে বাছাই কমিটি গঠন, সংবিধানের ১১৮ অনুচ্ছেদ অনুযায়ী নির্বাচন কমিশনের মেয়াদ পূর্ণ হবার ছয় মাস পূর্বে আইনানুযায়ী কমিশন গঠনের কার্যক্রম শুরু করা, বাছাই কমিটি কর্তৃক রাজনৈতিক দল ও নাগরিকদের প্রস্তাব বাছাই করে প্রধান নির্বাচন কমিশনার ও অন্যান্য নির্বাচন কমিশনারের বিপরীতে তিন জন করে নাম মহামান্য রাষ্ট্রপতির কাছে প্রেরণ, বাছাই কমিটি কর্তৃক ১/৩ ভিত্তিতে বাছাইকৃত ১৫ জনের প্রস্তাব মহামান্য রাষ্ট্রপতির নিকট প্রেরণের পূর্বে উক্ত তালিকা জনসমক্ষে প্রকাশ করা ও প্রেরিত প্রস্তাবের ভিত্তিতে রাষ্ট্রপতি প্রধান নির্বাচন কমিশনার ও ন্যূনতম একজন নারী নির্বাচন কমিশনারসহ চার জন নির্বাচন কমিশনার পদে নিয়োগদান করে পাঁচ সদস্য বিশিষ্ট নির্বাচন কমিশন গঠন করার এ সাতটি প্রস্তাব দেন তিনি।  
 
রাষ্ট্রপতি প্রস্তাবগুলো বিবেচনায় নিয়ে সামগ্রিক মতামত দেবার আশ্বাস দেন।    
 
 
বঙ্গভবনে এ বৈঠকে জাসদ সভাপতি ও তথ্যমন্ত্রী হাসানুল হক ইনু এমপি, সাধারণ সম্পাদক শিরীন আখতার এমপি, কার্যকরী সভাপতি এড. রবিউল আলম, সহ-সভাপতি মীর হোসাইন আখতার, স্থায়ী কমিটির সদস্য মোশাররফ হোসেন, উপদেষ্টামন্ডলির সদস্য ডা. এম এ করিম, স্থায়ী কমিটির সদস্য ড. আনোয়ার হোসেন, সহ-সভাপতি ইকবাল হোসেন খান, এড. হাবিবুর রহমান শওকত, এড. জিকরুল আহমেদ, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক নুরুল আখতার, নাদের চৌধুরী উপস্থিত ছিলেন। 
 
পরে জাসদ কার্যালয়ে সংবাদ সম্মেলনে জাসদের সাধারণ সম্পাদক শিরীন আখতার এমপি জানান, ‘২০১১ সালে নির্বাচন কমিশন গঠন প্রসঙ্গে তৎকালীন মহামান্য রাষ্ট্রপতির সমীপে জাতীয় সমাজতান্ত্রিক দল-জাসদ এর পক্ষ থেকে সংবিধানের ১১৮ অনুচ্ছেদ অনুযায়ী সুনির্দিষ্ট আইন প্রণয়নের প্রস্তাব করা হয়েছিল। কিন্তু তৎকালীন পরিস্থিতিতে ১১৮ অনুচ্ছেদ অনুযায়ী সুনির্দিষ্ট আইন প্রণয়ন করা সম্ভব হয়নি। তবে তৎকালীন মহামান্য রাষ্ট্রপতির নির্দেশনা মোতাবেক একটি প্রজ্ঞাপনের মাধ্যমে একটি বাছাই  কমিটি গঠন করা হয়েছিল।’ 
 
‘মহামান্য রাষ্ট্রপতির নির্দেশনা অনুযায়ী বাছাই কমিটি গঠন অবশ্যই একটি ইতিবাচক পদক্ষেপ ছিল। জাতীয় সমাজতান্ত্রিক দল-জাসদ মনে করে, প্রজ্ঞাপনের মাধ্যমে বাছাই কমিটি গঠনের ইতিবাচক পদক্ষেপ হলেও সংবিধানের ১১৮ অনুচ্ছেদের নির্দেশনা অনুযায়ী নির্বাচন কমিশন গঠন প্রসঙ্গে সুনির্দিষ্ট আইন প্রণয়ন করা দেশের নির্বাচনী ব্যবস্থা সুদৃঢ় করবে’, বলেন তিনি। 
 
জাসদ সভাপতি ও তথ্যমন্ত্রী হাসানুল হক ইনু এবং দলের কেন্দ্রীয় নেতৃবৃন্দ এসময় উপস্থিত ছিলেন।
 
ই৭/আরএস